bangladesh
ads

সর্বনাশ! প্রসেসড ফুডে বিপদ!

[ ctgreportbd | on August 09, 2017]

সময় বাঁচাতে রেডি টু মেড খাবার কেনেন? প্যাকেটজাত প্রসেসড ফুডের ওপর আসক্তি? জেনে নিন অজান্তে শরীরে কী বিপদ ডেকে আনছেন৷

প্রসেসড ফুড কী ?
প্যাকেটজাত সমস্ত খাবারকেই প্রসেসড ফুড বলা যায় যেমন বেকড, ফ্রিজড, ক্যানড, ড্রায়েড এবং পাস্ত্তরাইজিং প্রোডাক্ট৷ দুধ, তেল, সফট ড্রিঙ্ক, পাঁউরুটি, ফ্রুট জুস, সসেজ, বেকন, চিকেন নাগেটস, পিনাট বাটার প্রভৃতি প্যাকেটজাত খাবারকে প্রসেসড ফুড বলে৷

কেন ক্ষতিকারক ?
সিংহভাগ প্রসেসড ফুডে অ্যাডেড সুগার কিংবা হাই ফ্রুক্টোজ , রিফাইন্ড কার্বোহাইড্রেট , ট্রান্স ফ্যাট , প্রসেসড ভেজিটেবল অয়েল থাকে যা থেকে পরবর্তীকালে ওবেসিটি, হার্ট ডিজিস, ডায়াবিটিসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল৷ পাশাপাশি প্যাকেটজাত প্রতিটি খাবারে প্রচুর পরিমাণে প্রিসারভেটিভ থাকায় মারণরোগ ক্যান্সার পর্যন্ত হতে পারে৷

সমস্ত প্রসেসড ফুডই ক্ষতিকারক ?
না , সমস্ত প্রসেসড ফুড ক্ষতিকারক নয়৷ যেমন দুধকে জীবাণু মুক্ত করতে পাস্ত্তরাইজিং করে প্যাকেটজাত করা হয়৷ তাই প্যাকেটজাত দুধ প্রসেসড হলেও তা ক্ষতিকারক নয়৷ নারকোল , অলিভ প্রভৃতির বীজ পিষে তেল বের করা হয়৷ এই সমস্ত তেল প্রসেসড হলেও ক্ষতিকারক নয়৷

কেনার আগে দেখে নিন
ফ্যাট – কোনও খাবারে 17.5 গ্রামের বেশি থাকলে তা হাই ফ্যাট যুক্ত৷ 3 গ্রাম অথবা তার কম থাকলে সেই খাবারটি লো ফ্যাট (প্রতি 100 গ্রামে )

স্যাচুরেটেড ফ্যাট- 5 গ্রামের বেশি স্যাচুরেটেড ফ্যাট থাকলে তা ক্ষতিকারক৷ 1.5 গ্রাম অথবা তার কম পরিমাণ থাকলে তা কম ক্ষতিকারক৷ (প্রতি 100 গ্রামে )

সুগার- 22.5 গ্রামের বেশি থাকলে তা হাই সুগার যুক্ত৷ 5 গ্রাম কিংবা তার কম থাকলে সেই খাবারটি লো সুগার সমৃদ্ধ৷ (প্রতি 100 গ্রামে )

সল্ট – 1.5 গ্রামের বেশি নুন থাকলে তাতে নুনের আধিক্য রয়েছে৷ 0.3 গ্রাম কিংবা তার নিচে থাকলে তা নিরাপদ৷ (প্রতি 100 গ্রামে )

আপনার মুখরোচক খাবারটিতে কতটা বিপদ লুকিয়ে আছে
মার্জারিন- ট্রান্স ফ্যাট থাকায় রক্তে ব্যাড কোলেস্টেরলের মাত্রা বৃদ্ধি পায়, যা থেকে পরবর্তীকালে হরমোনাল ইমব্যালান্স , বন্ধাত্ব , হৃদরোগ এবং স্ট্রোক পর্যন্ত হতে পারে৷

প্রসেসড মিট – হট ডগস , চিকেন নাগেটস , সসেজ , বেকন প্রভৃতিতে পঞ্চাশ শতাংশেরও বেশি ফ্যাট থাকে৷ প্রোটিনের থেকে কার্বোহাইড্রেট বেশি থাকে৷ ট্রান্স ফ্যাট থাকায় টাইপ ডায়াবিটিসের সম্ভাবনা৷ সোডিয়ামের আধিক্য থাকায় বেশি কনজিউম করলে উচ্চ রক্তচাপের সম্ভাবনা প্রবল৷ স্যাচুরেটেড ফ্যাট থাকায় হার্ট এবং ওবেসিটির সমস্যা হতে পারে৷ প্রিসারভেটিভ থাকায় ক্যান্সারের মতো মারণ রোগে আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা প্রবল৷

ফ্রেঞ্চ ফ্রাই- হাই ক্যালরি সমৃদ্ধ যা ডায়াবিটিস , স্ট্রোক , প্রস্টেট , ব্রেস্ট , লাং , প্যানক্রিয়াটিক ক্যান্সারের কারণ৷

পটেটো চিপস- সোডিয়াম ও ট্রান্স ফ্যাটের আধার যা থেকে ওবেসিটি , হূদরোগ , কোলেস্টেরল , অ্যালঝাইমার্সের সম্ভাবনা দেখা দিতে পারে৷

এছাড়াও আর্টিফিশিয়াল সুইটনার , পাম অয়েল , সোডা , ক্যানড ফ্রুট জুস প্রভৃতিতে উপরোক্ত নানান ধরণের মারাত্মক ক্ষতিকারক উপাদান থাকে যা থেকে ডায়াবিটিস , কোলেস্টেরল , হূদরোগ , হরমোনাল ইমব্যালান্স এবং ক্যান্সারের ঝুঁকি রয়েছে৷ তাই আজ থেকেই এই ধরণের প্যাকেটজাত খাবারের প্রতি আসক্তি কাটান৷ বদলে ফ্রেশ -ডেলিশিয়াস খাবার খান ও সুস্থ থাকুন৷

Comments are closed.